শুক্রবার, ২৫শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় নারী কাউন্সিলরের কাণ্ড!

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
জুলাই ২১, ২০১৭
news-image

সাপের বাক্সে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা বহনের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় বরিশালে মান্না পাহাড়ি নামে এক সাপুড়েকে নির্মমভাবে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে নগরীর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইসরাত আমান রূপার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনায় নগরীর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইসরাত আমান রূপাসহ ৬ যুবলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল বুধবার রাত ৯টার দিকে কোতোয়ালি মডেল থানায় আহত সাপুড়ে মান্না পাহাড়ির স্ত্রী কাজল বেগম বাদী হয়ে এ মামলা করেন। মামলায় নগরীর সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর (১৬, ১৭ ও ১৮) ইসরাত আমান রূপাকে হুকুমের আসামি করা হয়েছে।

অন্য আসামিরা হলেন- নগরীর ২২ নম্বর ওয়ার্ডের জিয়া সড়কে স্থানীয় যুবলীগ কর্মী তরিকুল ইসলাম রাজা, সরজিৎ চন্দ্র রায় ওরফে সবুজ, মো. ফিরোজ, মাসুদ মোল্লা ও রফিকুল ইসলাম বাদশা। মান্না পাহাড়ি বর্তমানে শেলেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

মান্নার স্ত্রী কাজল বেগম বলেন, কয়েক মাস আগে মান্নাকে সাপের বাক্সে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা বহনের প্রস্তাব দেয় যুবলীগ কর্মী রাজা ও কাউন্সিলর রূপা। এতে রাজি না হওয়ায় তাকে হুমকি দেয় রাজা ও রূপা। ওই সময় মান্না কোতোয়ালি মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত সোমবার রাতে রূপার নির্দেশে রাজা ও তার সহযোগীরা মান্নাকে হত্যার উদ্দেশ্যে তার ওপর হামলা চালায়।

এ সময় যুবলীগ কর্মী রাজার নেতৃত্বে বাদশা, ফিরোজ, মাসুদ, সবুজ, নাসিরসহ কয়েকজন ধারাল অস্ত্র নিয়ে মান্না পাহাড়ির শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্মমভাবে কুপিয়ে জখম করে। তাকে মৃত ভেবে হামলাকারীরা চলে যাওয়ার পরও স্থানীয় লোকজন ভয়ে উদ্ধার করতে যায়নি। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মান্নাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের সেকেন্ড অফিসার এসআই সত্য রঞ্জন খাসকেল মামলার বলেন, পুলিশের পক্ষ থেকে হামলাকারীদের চিহিৃত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

 

সূত্র: বিডি টুয়েন্টিফোর লাইভ