রবিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দিন শেষে বাংলাদেশ ২৫৩/৬

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৭
news-image

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ২৫৩ রান। মঙ্গলবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় দিনের ব্যাটিংয়ে নামবে টিম টাইগার্স। ৬২ রান নিয়ে মুশফিকুর রহিম আর ১৯ রানে অপরাজিত আছেন নাসির হোসেন।

শেষ বেলায় ৬৬ করে বিদায় নেন সাব্বির রহমান। তার আগে মাত্র ৬২ বলে ৫ চার ১ ছয়ে নিজের চতুর্থ টেস্ট ফিফটি হাঁকান সাব্বির রহমান। দীর্ঘ নয় ম্যাচ পর সাদা জার্সিতে অর্ধশতকের দেখা পেলেন তিনি। সর্বশেষ ওয়েলিংটন টেস্টে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ফিফটি করেন সাব্বির। শেষমেশ ৬৬ রানেই থামল তার ইনিংস।

৩২ রানের মধ্যে থাকা সাকিব-মুশফিক জুটি ভাঙেন অ্যাস্টন অ্যাগার। অবশ্য কিছু সময়ের জন্য হলেও নাথান লায়নের নিয়মিত উইকেট শিকারের পথে বাধা হয়ে ছিলেন সাকিব আল হাসান এবং মুশফিকুর রহিম। মধ্যাহ্ন বিরতির আগে তিন তিনটে উইকেট নেওয়ার পর বাংলাদেশ শিবির চতুর্থ কামড়ও বসান লায়ন। যে কামড়ে ৩১ রান করে মাঠ ছাড়তে হয় বহুল আলোচিত ব্যাটসম্যান মুমিনুল হককে।

মনের মতো হলো না চট্টগ্রাম টেস্টের যাত্রা। মিরপুর টেস্টের দুই ইনিংসেই দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন তামিম ইকবাল। কিন্তু নিজের ঘরের মাঠে সুবিধা করতে পারেননি তিনি। দিনের শুরুতেই স্লিপে ক্যাচ দিয়ে বেঁচে যাওয়া তামিমকে ব্যক্তিগত ৯ রানেই ফিরতে হয়েছে। নাথান লায়নকে মারতে গিয়ে ব্যাটে-বলে সমন্বয় করতে পারেননি তামিম।

তামিমকে হারানোর চাপ কাটিয়ে উঠার আগেই ইমরুল কায়েসের বিদায়। সেই লায়নের বলেই কাটা পড়েন ইমরুল। প্রথম সারির দুই ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল আর ইমরুল কায়েসের বিদায়ে শুরুতেই বড়সড় ধাক্কা খায় বাংলাদেশ। তৃতীয় উইকেট জুটিতে মুমিনুল হককে সঙ্গে নিয়ে ধাক্কাটা কাটিয়ে উঠার চেষ্টা করেন সৌম্য সরকার। কিন্তু ৪৯ রানের জুটি ভেঙে সেই চেষ্টা ব্যর্থ করে দেন লায়ন।

লাঞ্চে যাওয়ার ঠিক আগ মুহূর্তে লায়নের বলে ডিফেন্স করতে গিয়ে এলবির ফাঁদে পড়েন সৌম্য। তাতে করে সকালটা হয়ে গেল ওজি স্পিনার নাথান লায়নের। তামিম ইকবাল, ইমরুল কায়েস এবং সৌম্য সরকার, তিনজনকেই একই পথ ‘এলবিডব্লিউ’ দিয়ে প্যাভিলিয়নে পাঠান ওজি স্পিনার নাথান লায়ন।

দিনের প্রথম মুদ্রা লড়াইয়ে জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের টেস্ট দলনেতা মুশফিকুর রহিম। এক পরিবর্তন নিয়ে আজ একাদশ সাজিয়েছে টিম বাংলাদেশ। শফিউল ইসলামের পরিবর্তে দলে ফিরেছেন মুমিনুল হক। সেক্ষেত্রে অলরাউন্ডারসহ নয় ব্যাটসম্যান নিয়ে লড়াইয়ে নামল মুশফিকরা। অপরদিকে জশ হ্যাজলউড এবং উসমান খাজার বদলে ওজি একাদশে হিলটন কার্টরাইট এবং স্টিভ ও’কিফ।

ঢাকা টেস্টে অস্ট্রেলিয়াকে প্রায় সাড়ে তিনদিনে পরাজিত করার পর মুশফিক বাহিনীর মনে ‘বাংলাওয়াশের’ স্বপ্ন। দ্বিতীয় টেস্টে হারাতে পারলেই সেই স্বপ্ন পূরণ হবে টাইগারদের। একটা পরিসংখ্যান টাইগারদের দেবে বাড়তি প্রেরণা। বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচে জেতার পর কখনো টেস্ট সিরিজ হারেনি বা ড্র করেনি।