রবিবার, ৩রা নভেম্বর, ২০১৯ ইং

খোকাকে দেশে ফেরাতে সরকারের সহায়তা চান ফখরুল

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
নভেম্বর ৩, ২০১৯
news-image

নিউ ইয়র্কের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের সহায়তা চেয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি আয়োজিত দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তিনি (সাদেক হোসেন খোকা) আমাদেরকে বলেছেন, তার বন্ধুদের বলেছেন যে, দেশের মাটিতেই যেন তার কবর হয়। আজকেও তার ছেলে সকাল বেলা ফোন করে বলেছে, তার বাবার এই এক ইচ্ছা আমরা পূরণ করতে চাই। আমরা আহ্বান জানাতে চাই সরকারের কাছে যে, তিনি যেন দেশে ফিরতে পারেন, সেই ব্যবস্থা তাদের গ্রহণ করা উচিত বলে আমরা মনে করি।’

সাদেক হোসেন খোকার রোগমুক্তি কামনায় এ দোয়া মাহফিল আয়োজন করা হয়। ১৮ অক্টোবর থেকে নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে তার চিকিৎসা চলছে। খোকার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে তার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে তার এবং পরিবারের কয়েকজন সদস্যের কোনো পাসপোর্ট সরকার দেয়নি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, সাদেক হোসেন খোকা দুরারোগ্যে ক্যান্সারে ভুগছেন। চিকিৎসার জন্য তিনি বিদেশে অবস্থান করছেন। আমি নিউইয়র্কে গিয়ে কয়েকবার তার সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি বলেছেন, যদি অসুস্থ না থাকতেন, প্রতি সপ্তাহে মনিটর করতে ডাক্তারের কাছে যেতে না হতো, তাহলে দেশে গিয়ে জেলে যেতাম, মানুষের সঙ্গে থাকতাম।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজ দুঃশাসনের যে যাতাকলে আমরা পড়েছি, শুধু সাদেক হোসেন খোকা নন, আমাদের অনেক মানুষ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন, অনেকেই শেষ পর্যায়ে চলে এসেছেন। আমাদের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়া অত্যন্ত অসুস্থ, শাহজাহান সিরাজ অসুস্থ। এভাবে দেখবেন, চারদিকে আমাদের যারা বয়স্ক মানুষ আছেন, তারা অসুস্থ হয়ে পড়ছেন দেশের এই অবস্থার কারণে।

আয়োজক সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মুন্সি বজলুল বাছিদ আঞ্জুর সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মীর সরফত আলী সপু, কাজী আবুল বাশার, আহসান উল্লাহ হাসান, নবী উল্লাহ নবী প্রমুখ। দোয়া ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ওলামা দলের আহবায়ক মাওলানা শাহ মোহাম্মদ নেসারুল হক।