শুক্রবার, ২২শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

ভিয়েনায় বাংলাদেশীদের পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপন।

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
আগস্ট ১২, ২০১৯
news-image

ভিয়েনা থেকে অল ইউরোপিয়ান ব্যুরো চীপঃ প্রায় চার হাজার বছর আগে আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি লাভের জন্য হজরত ইব্রাহিম (আ.) নিজ পুত্র হজরত ইসমাইল (আ.)’কে কোরবানি করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু পরম করুণাময়ের অপার কুদরতে হজরত ইসমাইল (আ.)-এর পরিবর্তে একটি দুম্বা কোরবানি হয়ে যায়। হজরত ইব্রাহিম (আ.)-এর ত্যাগের মহিমার কথা স্মরণ করে বিশ্বব্যাপি মুসলিম সম্প্রদায় জিলহজ মাসের ১০ তারিখে আল্লাহ পাকের অনুগ্রহ লাভের আশায় পশু কোরবানি করে থাকে। আর্থিকভাবে সামর্থ্যবান মুসলিমের জন্য আল্লাহ কোরবানি ওয়াজিব করে দিয়েছেন। এজন্য ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে কোরবানি করাই এ দিনের উত্তম ইবাদত। সেই ত্যাগ ও আনুগত্যের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে অষ্ট্রিয়ায় বসবাস রত বাংলাদেশী মুসলিম সম্প্রদায় আজ ১১/০৮/২০১৯ইং রবিবার ভিয়েনার বিভিন্ন মসজিদে সমবেত হন। বাংলাদেশী মুসলিমদের নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত বাংলাদেশ ইসলামিক সেন্টার বাইতুল মোকাররম মসজিদে ঈদুল আজহার প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৮ টায়। এ ছাড়া একই মসজিদে আরও দুইটি জামাত অনুষ্ঠিত হয় যথাক্রমে সকাল ৯:৩০ এবং সকাল ১১ টায়। প্রথম জামাতে ইমামতি করেন বাইতুল মোকাররম মসজিদের ইমাম ও খতীব ডঃ ফারুক আল মাদানি। জামাতে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ দূতাবাসের মান্যবর রাষ্ট্রদুত এম,আবু জাফর। দূতাবাসের কাউন্সেলর রাহাত বিন জামান এবং অন্যান্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ। এ ছারাও উপস্থিত ছিলেন অষ্ট্রিয়া বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকবৃন্দ,দৈনিক ভোরের সংলাপ এবং সেরা কণ্ঠের অল ইউরোপিয়ান ব্যুরো চীপ মাহবুবুর রহমান, অষ্ট্রিয়া আওয়ামীলীগের সভাপতি খন্দকার হাফিজুর রহমান নাসিম,সম্পাদক সাইফুল কবির,বি এন পির বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ, স্থানীয় সামাজিক নেতৃবৃন্দ এবং প্রবাসী বাংলাদেশীরা। ২য় এবং ৩য় জামাতে প্রচুর সংখ্যক প্রবাসীরা বাংলাদেশীরা। ২য় জামাতে ইমামতি করেন বাইতুল মোকাররম মসজিদের ইমাম ও খতিব গোলামুর রহমান আল আজহারী।২য় জামাতে উপস্থিত ছিলেন অষ্ট্রিয়ার বাংলাদেশী তরুন রাজনীতি বিদ মাহমুদুর রহমান নয়ন, অষ্ট্রিয়ার বাংলাদেশী তরুন প্রজন্ম এবং প্রবাসী বাংলাদেশীরা। ১ম জামাতে খুৎবার পর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন রাষ্ট্রদূত এম,আবু জাফর এবং বাইতুল মোকাররম মসজিদের সভাপতি আবিদ হোসেন খান তপন।