শুক্রবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

অষ্ট্রিয়ার সাড়া জাগানো বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত, ভোলা জেলার লালমোহনের সন্তান, অস্ট্রিয়ান তরুন রাজনীতিবিদ মাহমুদুর রহমান নয়ন। (পর্ব- ৪)

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
জুলাই ৭, ২০১৯
news-image
মাসুক আহমেদ চৌধুরী, বিশেষ প্রতিনিধি, অষ্ট্রিয়াঃ(পর্ব- ৪)
অষ্ট্রিয়ায় পার্লামেন্ট নির্বাচনের নিয়ম হল, জনগন সরাসরি ভোট দিবে পার্টিকে। শতকরা হিসেবে পার্টি এম, পির আসন পাবে। পার্টি সিদ্ধান্ত নিয়ে যাদের পার্লামেন্টে পাঠাবে তারাই হবে পার্লামেন্টের সদস্য। ২০১৭ইং সালের অক্টোবরের নির্বাচনে, মাহমুদুর রহমান নয়ন যেখান থেকে নির্বাচন করেন সেখানে প্রাক্তন বিরোধী দল  Social Democratic Party of Austria (SPÖ)  এর নিকট মাত্র তিন হাজার ভোটের ব্যবধানে হেরে যান। কিন্তু তার দল অষ্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি (ÖVP)এর প্রধান ৩১ বছর বয়সী  Sebastian Kurz  এর নেতৃত্বে সংখ্যা গরিষ্ঠতা অর্জন করে ক্ষমতায় আসে। মাত্র ২২ বছর বয়সী মাহমুদুর রহমান নয়ন নির্বাচনে নির্বাচিত হতে পারেন নি বটে কিন্তু এই বয়সে মনোনয়ন! সেটাই বা কম কিসে? তরুন এই রাজনীতিবিদ যদি জিততে পারতো তবে নূতন এক ইতিহাস সৃষ্ট হতো, অষ্ট্রিয়ার পার্লামেন্টে পৌঁছে যেতো বাংলার প্রতিনিধি। অষ্ট্রিয়ার পার্লামেন্টে নয়নকে পাঠাতে না পারলেও অষ্ট্রিয়ান পিপলস পার্টি (ÖVP) এর প্রধান Sebastian Kurz এই তরুন কে ২০১৮ইং সালে পার্টির যুব ইউনিটের (JÖVP) ভিয়েনার সভাপতি হিসেবে মনোনয়ন দেন। এরপর নয়ন ভিয়েনার অষ্ট্রিয়ান তরুনদের আরও বেশী পরিমানে রাজনীতিতে সম্পৃক্ত করেন। তরুনদের মাঝে আরও রাজনৈতিক ধারনা বৃদ্ধি করতে তরুন এই রাজনীতিবিদ বিভিন্ন রাজনৈতিক কেম্পেইনে অংশ গ্রহন করেন এবং রাজনীতিতে তরুণদের অগ্রাধিকার দেওয়ার দাবি জানান।
(পত্রিকার পাতায় চোখ রাখুন শেষ পর্বের জন্য।)