রবিবার, ২৫শে আগস্ট, ২০১৯ ইং

পরকীয়ায় কে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত?

সেরাকণ্ঠ ডট কম :
অক্টোবর ৫, ২০১৮
news-image

দাম্পত্য জীবনে অশান্তির একটি বড় কারণ হচ্ছে- পরকীয়া। এ কারণে বহু সংসার ভেঙে যায়৷ তবে এ ব্যাপারে নারী বা পুরুষ- কে দায়ী তা বলা মুসকিল৷ একজন পার্টনার পরকীয়ায় জড়িয়ে গেলে, অন্যজন তার প্রতি প্রতিশোধ নেয়ার জন্যও অনেক সময় নিজেকে অন্য আরেকজনের সঙ্গে জড়িয়ে ফেলেন।তবে পরকীয়ার জন্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয় সন্তান।

সহকর্মীর সঙ্গে পরকীয়া প্রেম

দিনের বেশিরভাগ সময়ই মানুষ কর্মস্থলে কাটায়। সে কারণে নিজের নানা সমস্যার কথা অনেকেই সহকর্মীদের সঙ্গে শেয়ার করে থাকেন৷ এসবের মধ্য দিয়ে প্রথমে সহানুভূতি এবং পরে পরকীয়ায় জন্ম হতে পারে।

অফিসিয়াল ট্যুর

কোনো কোনো সহকর্মীর মধ্যেই হালকা সম্পর্ক থাকলে অফিসিয়াল ট্যুরে গিয়ে সে সম্পর্ক গাঢ় হওয়ার সম্ভাবনা থাকে৷ এ ধরনের ঘটনা কিন্তু আপাত সুখী দম্পতিদের ক্ষেত্রেও ঘটতে পারে৷ অনেকের ক্ষেত্রে পরে চাইলেও সে সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসা বেশ কঠিন হয়ে দাঁড়ায়৷

ক্ষমা করা কি সম্ভব?

১০-১৫ বছর সংসার করার পর যখন কেউ পরকীয়ায় জড়িয়ে যান, তখন স্ত্রী বা স্বামী তা জেনে গেলে তারা ক্ষমা চান এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সব কিছু ভুলে গিয়ে আবারও আগের মতো হতে চান।

ক্ষণিকের আনন্দ

বিবাহিত নারী বা পুরুষ হঠাৎ কোনো দুর্বল মুহূর্তে অন্য কারও সঙ্গে রাত কাটানোর সুযোগ নিয়ে থাকেন। এ রকম ঘটনা পুরুষদের ক্ষেত্রেই নাকি বেশি ঘটে। বিশেষ করে স্ত্রীর প্রিয় বান্ধবীর সঙ্গে। শুধু এক রাতের ব্যাপার হলে অনেক স্ত্রীই কিন্তু স্বামীকে ক্ষমা করে দেন।

যাদের ভোগান্তি

মা-বাবার পরকীয়ায় কষ্ট পায় আসলে সন্তানরা। বিশেষ করে তাদের বয়স কম হয়। হঠাৎ করে মা-বাবার মধ্যকার সম্পর্ক বা অন্যরকম আচরণ শিশুদের আতঙ্কিত করে৷ শিশুমনে পড়ে এর নেতিবাচক প্রভাব, যা হয়তো সারাজীবন থেকে যায়।

সোশ্যাল মিডিয়া

আধুনিক বিশ্বে সোশ্যাল মিডিয়া বা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমও যে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ার একটি কারণ, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

এ জাতীয় আরও খবর